ছবিঘর : নয়াদিল্লির ভয়াবহ সহিংসতা...

ভারতের নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের পর নয়াদিল্লিতে আইনটির সমর্থক ও বিরোধীদের মধ্যকার সংঘর্ষের পর পুড়ে ধ্বংস হওয়া আবাসিক এলাকা ও দোকানপাটের দিকে তাকিয়ে আছেন এক বাসিন্দা। সাজ্জাদ হুসাইন/এএফপি

আল জাজিরা ইংরেজি:
নয়াদিল্লিতে তিন দিনের সংঘর্ষে অন্তত ২১ জন নিহত ও ১৮৯ জন আহত হয়েছেন। হাসপাতালে গুরুতর আহতদের সংখ্যা যেভাবে বাড়ছে, তাতে নিহতের সংখ্য আরো বৃদ্ধি পেতে পারে। ঘটনাক্রমে এ ঘটনাটি ভারতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম রাষ্ট্রীয় সফরের সময়কালেই ঘটেছে।
নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনরত মুসলমানদের উপর হিন্দুদের আক্রমণের পর থেকে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। সমালোচকরা বলছেন, এতে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটির ধর্মনিরপেক্ষ অবস্থানের লঙ্ঘন হয়েছে।
বুধবারেও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়া এলাকাগুলোতে উত্তেজনা বিরাজ করছিল, বেশির ভাগ দোকান-পাট এবং স্কুল বন্ধ ছিল। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল নেতৃত্বাধীন দিল্লি সরকার সেনাবাহিনী মোতায়েনের আহ্বান জানিয়েছে, যেহেতু মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতায় জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ উঠেছে খোদ পুলিশের বিরুদ্ধে।
হিন্দু জাতীয়তাবাদী বিজেপি সরকার ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় সহিংসতা এড়াতে জনসমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে।
বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সবাইকে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু সময়মতো যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ না করে উলটো তিনদিন ধরে ট্রাম্পকে স্বাগত জানাতে ব্যস্ত থাকায়ে তিনি সমালোচিত হচ্ছেন। 

১. 
দিল্লিতে সংঘর্ষের পর পুড়িয়ে দেওয়া গাড়ি দেখছে শিশুরা। রূপক দে চৌধুরী / রয়টার্স

২. 
মঙ্গলবার সহিংস আন্দোলনকারীদের আগুনে চান্দবাগের একটি পুড়ে যাওয়া চাকার বাজারে হাঁটছে এক অগ্নিনির্বাপণ কর্মী। আদনান আবিদি / রয়টার্স

৩. 
দাঙ্গাকবলিত এলাকায় একটি অবস্থান ধর্মঘট চলাকালে জনৈক মহিলা এক পুলিশ কর্মকর্তার সাথে কথা বলছেন। দানিশ সিদ্দিকি / রয়টার্স

৪. 
ভারতীয় নিরাপত্তা কর্মকর্তা একটি দোকান বন্ধ করার নির্দেশ দিচ্ছেন। রাজেশ কুমার সিংহ / এপি ফটোজ

৫. 
পুলিশি প্রহরায় নয়াদিল্লির দাঙ্গা বিধ্বস্ত এলাকা ছাড়ছে এক পরিবার। মনীষ স্বরূপ / এপি ফটোজ

৬. 
মঙ্গলবারে অগ্নিসংযোগকৃত একটি চাকার দোকানে আগুন নেবানোর সময় উদ্ধারকারী  গাড়ির পাশে দাঁড়িয়ে আছেন কয়েক জন অগ্নিনির্বাপণকর্মী। প্রকাশ সিংহ / এএফপি

৭. 
পুড়ে যাওয়া ঘরের ধ্বংসাবশেষ দেখছে লোকজন। সাজ্জাদ হুসাইন / এএফপি

৮. 
পুড়ে যাওয়া একটি মসজিদ থেকে উদ্ধারকৃত পবিত্র কুরআনের কপিসমূহ দাফন করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। সাজ্জাদ হুসাইন / এএফপি

৯. 
আশোকনগরে পুড়ে যাওয়া একটি মসজিদ ও দোকানপাটের পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়া এক লোক মোবাইল ফোনে কথা বলছেন। সাজ্জাদ হুসাইন / এএফপি

––––––––––––––––––––––––––––––––
দিল্লিতে সংগঠিত ভয়াবহ সহিংসতার ছবি ও ক্যাপশন আল জাজিরা ইংরেজি থেকে সংগৃহীত।
[blogger]

Author Name

ভাষান্তর

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.